...

Nuhil Mehdy

Polyglot Programmer, White Hat Hacker, AI Enthusiast by Choice!

SpaceX এর Falcon 9 এবং Iridium NEXT এর নতুন প্রযুক্তি


আজ ২২ ডিসেম্বর SpaceX -এর অতিপরিচিত রকেট Falcon9 মহাকাশে উড়িয়ে নিয়ে গেছে Iridium NEXT কোম্পানির ১০টি স্যাটেলাইটকে। SpaceX এর নাম অনেকেই শুনে থাকবেন যারা কমার্শিয়ালি স্পেসে ট্রান্সপোর্ট, ট্রাভেল, ডেপ্লয়মেন্ট রিলেটেড বিজনেস করে। বলে রাখা ভালো এদের এই Falcon9 মডেলের রকেট দিয়েই কিন্তু কয়েকমাস আগে বেশ কিছু ন্যানো স্যাটেলাইট ডেপলয় করা হয়েছিল যার মধ্যে ছিল বাংলাদেশের প্রথম ন্যানো স্যাটেলাইট ব্র্যাক অন্নেশা। যা হোক এবার এরা Iridium NEXT নামের কোম্পানির হয়ে স্যাটেলাইট ডেপ্লয়মেন্টের কাজ করলো।

তাই, প্রথমেই জেনে রাখা ভালো Iridium NEXT কারা এবং কি করবে এসব স্যাটেলাইট দিয়ে। এরা next generation global satellite constellation তৈরি করছে লো আর্থ অরবিটে। অর্থাৎ প্রায় ৭৫ টি স্যাটেলাইটের মাধ্যমে এরা পুরো পৃথিবীকে ঘিরে একটি আধুনিক নেটওয়ার্ক তৈরি করবে যার মাধ্যমে বিশ্বের সব এয়ারক্রাফটকে রিয়েলটাইম লোকেট করা সম্ভব হবে তাদের অবস্থান, পজিশন, উচ্চতা, স্পিড ইত্যাদি ফ্যাক্টর দিয়ে। অনেকেই ভেবে থাকবেন রাডার ভিত্তিক এয়ারক্রাফট মনিটরিং সিস্টেম তো আছেই। কিন্তু এই রাডার সিস্টেমের কাভারেজ অনেক জায়গাতেই নেই। সেখানে এয়ারক্রাফট গুলো সিমপ্লি বেওয়ারিশ হয়ে উড়ে কোনরকমে পরের বেজষ্টেশনের কাছাকাছি পৌছার অপেক্ষায় থাকে। শুধু তাই না, Iridium এর এই আধুনিক পজিশনিং সিস্টেম পৃথিবীর সব বড় বড় জাহাজের রিয়েল টাইম লোকেশনেরও দায়িত্ব নিচ্ছে।

প্রত্যেকটা স্যাটেলাইটের ওজন ৬০০ কেজি করে। এমনি এমনি এই ওজন হয় নি। প্রত্যেকটার সোলার প্যানেলের পাখার লেন্থ-ই ৯ মিটার। সাথে আছে খুব কাজের একটা পে-লোড যার নাম ADS-B. প্লেন এবং জাহাজগুলো খুব নির্দিষ্ট ফ্রিকুয়েন্সির সিগনাল পাঠাবে স্যাটেলাইট গুলোতে থাকা এই ADS-B পে-লোড গুলোতে। এই এই মেশিন সাথেই সাথেই ডাটা পাঠাতে পারবে ভূমিতে থাকা এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল রুম গুলোতে। মোটকথা Iridium NEXT নতুন এক বিজনেসের জন্ম দিতে যাচ্ছে যার ক্রেতা হবে এয়ারক্রাফট কোম্পানি, এয়ারফোরস, জাহাজ কোম্পানি থেকে শুরু করে অটোনমাস গাড়ি কোম্পানিগুলোও।

এবার আসি আজকের এই মিশনের কিছু বিস্তারিত নিয়ে। Falcon9 রকেটের উচ্চতা ৭০ মিটার অর্থাৎ ২০ তলা বিল্ডিংএর সমান। রকেটটি উৎক্ষেপণ হয়েছে ক্যালিফোর্নিয়ার Vandenberg Air Force Base এর Space Launch Complex 4E (SLC-4E) থেকে। আজকের এই মিশনের নাম SpaceX Falcon9 Iridium-4 Launch. অর্থাৎ এর আগে SpaceX তাদের ক্লায়েন্ট Iridium এর জন্য ৩টা আলাদা আলাদা মিশন শেষ করে ফেলেছে এবং যেগুলো হয়েছে ২০১৭ তেই। এই চতুর্থ মিশন মিলে মোট চার ফ্লাইটে মোট ৪০ টি Iridium NEXT স্যাটেলাইট LEO অর্থাৎ লো আর্থ অরবিটে সফল ভাবে ডেপলয় করা হয়েছে। SpaceX মোট ৮টি ফ্লাইট করবে Iridium NEXT এর সবগুলো স্যাটেলাইট অরবিটে ডেপলয় করার জন্য।

অন্যান্য রকেটের মতই এরও দুটি অংশ আছে। স্টেজ ১ এবং স্টেজ ২। প্রথম স্টেজ যেটা মোটামুটি লম্বা খাম্বার মত, তার কাজ হচ্ছে - প্রাথমিক ফোরস তৈরি করা যার মাধ্যমে পুরো রকেটটি পৃথিবীর প্রায় সিংহভাগ বায়ুমণ্ডলকে অতিক্রম করে উপড়ে উঠে যায়। বলে রাখা ভালো এই প্রথম স্টেজটি আজকে তার দ্বিতীয় ফ্লাইট দিয়েছে। অর্থাৎ আক্ষরিক অর্থেই একদম এই রকেটটি-ই Iridum-2 লঞ্চে ব্যবহৃত হয়েছিল। রি-ইউজ্যাবল রকেটের একটা সফল উদাহরণ এই রকেটটি। দুঃখের বিষয় এই স্টেজ ১ কে এবার আর ফিরিয়ে আনা হচ্ছে না কোন ড্রোন শিপে। হয়ত এর শরীর শেষ, এজন্য।

ওদিকে স্টেজ ২ এর কাজ হচ্ছে মুল অরবিটে যাওয়া এবং সেখানে স্যাটেলাইট ডেপলয় করা। ডেপলয় মানে আর কিছুই না পেটের মধ্যে থেকে ডিম পাড়ার মত করে একটা একটা করে স্যাটেলাইট বেড় করে দেয়া। তবে চ্যালেনিজং পার্ট হচ্ছে, এই ডেপ্লয়মেন্ট টাইম ধরা হয় মাত্র ১ সেকেন্ড। এর মধ্যে সঠিক স্পিডে, সঠিকে লেয়ারে স্যাটেলাইটকে ছেড়ে দিতে না পারলে পরের দিনের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। যা হোক, দুটো স্টেজের সেপারেশন হয় ভূমি থেকে ৭০ কিলোমিটার উচ্চতায় এবং ওখান থেকে স্টেজ ২ প্রচুর গতি অর্থাৎ অরবিটাল স্পিড নিয়ে এগিয়ে যায় সঠিক অরিবিটের দিকে। এই প্রচুর গতি কত জানেন? 7.5Km প্রতি সেকেন্ড। প্রথমে স্টেজ ২ মোটামুটি একটা টেম্পোরারি অরবিট ধরে প্রায় পৃথিবীর অর্ধেক পরিধি ঘুরে ভূমি থেকে ৬২৫ কিলোমিটার উচ্চতায় উঠে সঠিক অরবিটে অবস্থান নিয়ে ঘুরতে থাকে। এর মধ্যে সে দুইবার ইঞ্জিন ব্যবহার করে। প্রথম দফায় ইঞ্জিন চালানোকে বার্ন ১ বলে। এরপর অনেকক্ষণ রেস্ট নিয়ে বুস্টার মারার জন্য আবার ইঞ্জিন চালু করে যাকে বার্ন ২ বলে। এখানেই সে তার পেটের মধ্যে থাকা ১০টি Iridium স্যাটেলাইটকে একে একে ছেড়ে দেয়। ১০টা ডিম পারতে ১৫ মিনিট সময় লেগেছে।

সোশ্যাল হাইপ- আজকে অনেকেই ক্যালিফোর্নিয়া, লস অ্যাঞ্জেলস এমনকি অ্যারিজোনা থেকে আকাশের মধ্যে স্পারম আকৃতির আলোকিত এলাকা দেখেছেন। যেটা নিয়ে স্বয়ং এলন মাস্কও কৌতুক করেছেন টুইটারে। এটা হয়ছে Facon9 এর স্টেজ সেপারেশন ঘটার সময়।